সূর্য্যের ঘুর্ণন

ছোট বন্ধুরা,তোমরা জান যে পৃথিবী সূর্য্যের চারদিকে ঘোরে আর জান সূর্য্য চুপটি করে দাড়িয়ে দাড়িয়ে পৃথিবীর ঘোরা দেখে;তাই কি?আসলে কিন্তু তা নয়।সূর্য্যও ঘুরছে।শুনে আশ্চর্য হচ্ছো খুব!এবার তাহলে শোনো কিভাবে ঘোরে তার গল্প:পৃথিবী ও সূর্য্য দুটি ভিন্ন বস্তু।একটি জলন্ত তারকা আর অপরটি তার গ্রহ আমাদের আপন পৃথিবী;দুটি আলাদা হবার কারনে এদের ঘুর্ণন কিছুটা আলাদা।পৃথিবী কিভাবে ঘোরে […]

ফুয়েল সেল আবিষ্কারের ইতিকথা

{mosimage}বর্তমানে বিশ্বে নবায়নযোগ্য জ্বালানী ব্যবহারের তৎপরতা বেড়ে গিয়েছে। আর ফুয়েল সেল এই নবায়নযোগ্য জ্বালানীরই একটি মাধ্যম। কিন্তু কিভাবে আবিষ্কৃত হলো এই ফুয়েল সেল। ফুয়েল সেল হচ্ছে এক প্রকার রাসায়নিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বিদ্যুত-প্রবাহ সৃষ্টিকারী যন্ত্র। ১৮৩৮ সালে জার্মান বিজ্ঞানী ফ্রেড্রিক স্কোবিয়েন প্রথম ফুয়েল সেল এর নীতি আবিষ্কার করেন। ১৮৩৯ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে সৌখিন বিজ্ঞানী এবং ব্যারিস্টার […]

ছোটদের বিজ্ঞান মনীষা: বিজ্ঞানী আল ফারাবী

{mosimage}একসময় মুসলমানদের জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চা কোনো অংশে কম ছিল না। সে সময় সমগ্র বিশ্বের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা ছিল মুসলমানদের হাতে। জ্ঞান-বিজ্ঞান, শিল্প-সাহিত্য ও সভ্যতায় মুসলিম জাতি ছিল উন্নত ও শ্রেষ্ঠ। অতীব দুঃখের বিষয়, মুসলমানদের গৌরবোজ্জ্বল অতীত সম্পর্কে আজ মুসলমানদের অনেকেই ওয়াকিবহাল নয়। ইউরোপের পন্ডিতরা বিশ্বখ্যাত মুসলিম বিজ্ঞানী ও দার্শনিকদের নাম বিকৃত করে উপস্থাপন করেছেন। সেই ঐতিহ্যের মাঝে […]

ছোটদের বিজ্ঞান মনীষা:বিজ্ঞানী আল বিরুনী

{mosimage}প্রাচ্যের বিজ্ঞানীদের জীবন আলোচনা করার সময় প্রসঙ্গত একজনের নাম চলে আসে। গণিতবিদ্যায় যার অবদান উল্লেখযোগ্য। বিজ্ঞানের প্রায় সবকটি শাখায় তিনি গবেষণা করেছেন। সেই সঙ্গে তাঁর মূল্যবান মতবাদ ব্যক্ত করেছেন। তিনি হচ্ছেন আবু রৈহান মুহম্মদ ইবন আহমদ আল বিরুনী। আল বিরুনী নামে তিনি অধিক পরিচিত। বিজ্ঞানীর জীবনে অবিস্মরণীয় ঘটনা আল বিরুনী ছিলেন মধ্যযুগের বিশ্বখ্যাত আরবীয় শিক্ষাবিদ […]

ছোটদের বিজ্ঞান মনীষা: বিজ্ঞানী ইবনে সিনা

{mosimage} বিজ্ঞানের একটি অন্যতম শাখা হচ্ছে চিকিৎসা বিজ্ঞান। আর এই চিকিৎসা বিজ্ঞানে একজন বিজ্ঞানী বিশ্বজুড়ে সুনাম অর্জন করেছিলেন। তাঁর লেখা চিকিৎসা বিষয়ক গ্রন্থ “আল কানুন ফিল থিব” কে দীর্ঘকাল ইউরোপে চিকিৎসার ক্ষেত্রে অপ্রতিদ্বন্দ্বী ও নির্ভরযোগ্য গ্রন্থ হিসেবে বিবেচিত করা হতো। মানবদেহের অঙ্গসংস্থান ও শরীরতত্ত্ব সন্বন্ধে তিনি যে সব তথ্য প্রদান করেছিলেন সেগুলো সপ্তদশ শতাব্দীর শেষভাগ […]

ছোটদের বিজ্ঞান মনীষা: বিজ্ঞানী জাবির ইবনে হাইয়ান

{mosimage}জাবির ইবনে হাইয়ান এর পূর্ণ নাম আবু আবদুল্লাহ জাবির ইবনে হাইয়ান। কেউ তাকে আল হাররানী এবং ‘আস্ সুফী’ নামেও অভিহিত করেন। তিনি জ্যোতির্বিজ্ঞান ছাড়াও চিকিৎসা শাস্ত্র, দর্শণ, যুদ্ধবিদ্যা, রসায়ন, জ্যামিতি প্রভৃতি বিষয়ে পান্ডিত্য লাভ করেন।  বিজ্ঞানীর জীবনে অবিস্মরণীয় ঘটনা জাবির ইবন হাইয়ানকে বলা হয় রসায়ন বিজ্ঞানের জনক। তাঁকে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ রসায়নবিদদের একজন হিসেবে গণ্য করা […]

ছোটদের বিজ্ঞান মনীষা:বিজ্ঞানী জেমস ওয়াট

{mosimage}বিজ্ঞান আজ আমাদের পৌঁছে দিয়েছে এক আধুনিক উৎকর্ষতার যুগে। হয়তো আমরা অনেকে জানি না আধুনিক স্টীম ইঞ্জিনের আবিষ্কারক কে? তিনি হচ্ছেন স্কটিশ পদার্থবিজ্ঞানী জেমস ওয়াট। তিনি শিল্প সংক্রান্ত বিপ্লবের ক্ষেত্রে ছিলেন প্রধান চরিত্র। বিজ্ঞানীর জীবনে মজার ঘটনা জেমস ওয়াটের বাবা ছিল একজন ঠিকাদার ও জাহাজ ব্যবসায়ী। মজার কথা, স্কুলের পড়াশুনায় তার তেমন আগ্রহ ছিল না। […]

আবিষ্কারের ইতিকথা: উদ্ভিদের প্রাণ

{mosimage}বেশিদিন আগের কথা নয়, এই তো সেদিন পর্যন্ত মানুষ জানত না যে উদ্ভিদেরও প্রাণ আছে। বিজ্ঞানী স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু’র আবিষ্কারের পূর্ব পর্যন্ত সারা বিশ্বের মানুষের ধারণা ছিল উদ্ভিদ জড় পদার্থ মাত্র। তিনিই লক্ষ্য করেন, উদ্ভিদ ও প্রাণী জীবনের মধ্যে অনেক সাদৃশ্য রয়েছে। মানুষের মতো উদ্ভিদেরও রয়েছে আবেগ ও সুখ-দুঃখের অনুভূতি। তিনি প্রমাণ করতে সক্ষম […]

আবিষ্কারের ইতিকথা: বাষ্পীয় ইঞ্জিন

{mosimage}বিশ্বে বাষ্পীয় ইঞ্জিন এক নবযাত্রার সূচনা করেছিল। শিল্প বিপ্লবের ক্ষেত্রে এই আবিষ্কার বিশেষ ভূমিকা রেখেছিল। রেলগাড়িতে প্রথম যে ইঞ্জিন ব্যবহৃত হয়েছিল তা হচ্ছে বাষ্পীয় ইঞ্জিন। কিন্তু কিভাবে আবিষ্কৃত হলো এই বাষ্পীয় ইঞ্জিন। স্কটিশ বিজ্ঞানী জেমস ওয়াট এই বাষ্পীয় ইঞ্জিনের আবিষ্কারক। তাঁর মধ্যে বিদ্যমান ছিল এক উদ্ভাবনী ক্ষমতা। তিনি ইউনিভার্সিটি অব গ্লাসগোতে শিক্ষাকালীন সময়ে বাষ্পীয় ইঞ্জিন […]

বিজ্ঞানী আবদুস সালাম

[১৯২৬-১৯৯৬ খ্রিস্টাব্দ]   বিজ্ঞানের বিশাল জগতে পদার্থ বিজ্ঞানের ভূমিকা অগ্রগণ্য। আর পদার্থ বিজ্ঞান চর্চা ও গবেষণায় যেসব বিজ্ঞানী কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন তাঁদের মধ্যে পাকিস্তানের অধ্যাপক আবদুস সালাম অন্যতম। বিশ্ববাসীর কাছে এ তথ্য প্রচলিত হল ‘সুইডিশ একাডেমী  আর সায়েন্স’ যেদিন ১৯৭৯ সালে পদার্থ বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে নোবেল পুরস্কার ঘোষণা করলেন। পদার্থ বিজ্ঞানে যে তিনজন নোবেল পুরস্কার পান […]